তরুণ ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন

গতকাল শেষ হয়েছে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। ফাইনালে গাজীপুর চট্টগ্রামকে ৫ রানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে জেমকন খুলনা। বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের আলো ছড়িয়েছেন বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। সিনিয়র ক্রিকেটারদের পাশাপাশি দুর্দান্ত খেলেছে জুনিয়ার ক্রিকেটাররা।





যাদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের পারফরম্যান্স দেখে মুগ্ধ হয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। এই সময়ে মোস্তাফিজুর রহমান এবং লিটন দাসের দারুণ প্রশংসা করেন তিনি।

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের দুর্দান্ত খেলেছে নেই দুই তরুণ ক্রিকেটার। এর মধ্যে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহ করেছেন লিটন দাস এবং টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক ও ম্যান অফ দ্যা টুর্নামেন্ট হয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান।

গতকাল ফাইনাল ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘আমার তো কয়েকটা ছেলের খেলা খুব ভালো লেগেছে। আমার কাছে সবচেয়ে ভালো লেগেছে আমাদের ন্যাশনাল টিমের প্লেয়ার তারাও ভালো করেছে। উদাহরণ স্বরূপ, মুস্তাফিজের বল আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে। রুবেলও ভালো করেছে।’

‘ব্যাটিংয়ে দেখলে লিটন দাস, সৌম্য ভালো খেলেছে। রিয়াদ আজকেও অসাধারণ ইনিংস খেলেছে। শান্ত, আমার কাছে মনে হচ্ছে ওর কনফিডেন্স লেভেলটা দিন দিন বাড়ছে এবং ভবিষ্যতের জন্য একটা খুব ভালো প্লেয়ার সংযোজন হয়েছে। আফিফের খেলা ভালো লেগেছে।’

সিনিয়র ক্রিকেটারদের পাশাপাশি যুব বিশ্বকাপ জয়ী ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্স নজরে পড়েছে বিসিবি সভাপতির। এরমধ্যে ফাস্ট বোলার শরিফুল ইসলাম পারভেজ হোসেন ইমনের নাম উল্লেখ করেছেন তিনি।

“নতুনদের মধ্যে শরিফুলের খেলা খুব ভালো লেগেছে, তাসকিনের বলও ভালো হয়েছে। ইমন ছেলেটার ব্যাটিং ভালো লেগেছে, ইয়াসির রাব্বির ব্যাটিং ভালো লেগেছে। নতুন-পুরনো মিলিয়ে একটা ভালো কম্বিনেশন আমরা দেখেছি, এখন আমাদের কাছে অনেক অপশন আছে।”





তবে বাংলাদেশ ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ মূল্যবান ক্রিকেটার হিসেবে মেহেদী হাসান এর নাম উল্লেখ করেছেন বিসিবি সভাপতি। “আপনি যদি মেহেদীর কথা বলেন, বেশ অ্যাগ্রেসিভ একটা প্লেয়ার টি-টোয়েন্টির জন্য। আমাদের ফিউচারের জন্য মূল্যবান হতে পারে। আমি বলছি বেশ কিছু প্লেয়ার আমরা পেয়েছি যারা আমাদের পাইপলাইনটাকে অনেক স্ট্রং করেছে এই টুর্নামেন্টের মধ্য দিয়ে।”