অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রয়োজনে মোহাম্মদ মিথুন এবং সাকিবকে দিয়ে ওপেনিং এ ব্যাট করাতে চান প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো

ইনজুরির কারণে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলতে পারছেন না জাতীয় দলের দুই ওপেনার ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল এবং লিটন দাস। যার কারণে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের বাংলাদেশ দলের ওপেনিংয়ে হিসাবে দেখা গিয়েছে সৌম্য সরকার এবং নাঈম শেখকে।





যদিও বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলের হয়ে নিয়মিত ওপেনিংয়ে ব্যাট করেছেন নাঈম শেখ। এছাড়াও বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে একসময় দীর্ঘদিন ধরে ওপেনিংয়ে ব্যাট করেছেন সৌম্য সরকার। কিন্তু এই মুহূর্তে এই দুইজন ছাড়া জাতীয় দলে আর কোন ওপেনার ব্যাটসম্যান নেই বললেই চলে।

তবে চলতি সিরিজের মাঝপথে কোন ওপেনার ইনজুরিতে পড়েন তাহলে ওপেনিংয়ে দেখা যাবে কাদেরকে? এমন এক প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন আজ বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো। তিনি জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়া সিরিজে এমন পরিস্থিতি হলে প্রয়োজনে সাকিব আল হাসান এবং মোহাম্মদ মিঠুনকে ওপেনিংয়ে খেলাতে চান তিনি।

জাতীয় দলের হয়ে ওপেনিংয়ে ব্যাটিং করেন না সাকিব আল হাসান। তবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে টপ অর্ডারে অর্থাৎ তিন নম্বর ব্যাটিং পজিশন দীর্ঘদিন ধরে ব্যাটিং করছেন তিনি। এছাড়াও ওয়ানডে দলের হয়ে তিন নম্বরে ব্যাটিং পজিশনে দুর্দান্ত খেলেছেন সাকিব আল হাসান।

এছাড়াও বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের বর্তমানে মিডল অর্ডারে ব্যাট করলেও একসময় বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে ওপেনিংয়ে ব্যাটিং করতেন মোহাম্মদ মিঠুন। এছাড়াও ঘরোয়া ক্রিকেট লীগে ওপেনিংয়ে ব্যাট করতে দেখা গিয়েছে থাকে। তাই ওপেনিংয়ে বিকল্প হিসেবে রয়েছেন একমাত্র তিনিই। যার কারণে এই দুইজনকেই বেছে নিয়েছেন প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো।

সাংবাদিকদের সাথে আজ এক ভার্চুয়াল প্রেস কনফারেন্সে এক প্রশ্নে কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলেন, ‘আমরা এটা নিয়ে অনেক ভেবেছি। সাকিব আছে, সে ওপেনিংয়ে উঠে আসতে পারে”।





“মোহাম্মদ মিঠুন দলে ফিরে এসেছে। যদিও সে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান, এই সংস্করণে প্রয়োজনে সে ওপেন করতে পারে, যদি কোনো ওপেনার চোট পায়। আশা করি, ওপেনারদের কিছু হবে না। তবে কিছু হয়ে গেলে, বিকল্প আছে আমাদের।”