প্লেয়ার ড্রাফটে সবচেয়ে বেশি টাকা খরচ করেছে ফরচুন বরিশাল। সবচেয়ে কম চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স

গতকাল সম্পন্ন হয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ বিপিএলের নবম আসরের প্লেয়ার ড্রাফট। যেখানে সাতটি দলে দেশি-বিদেশি মিলিয়ে এখন পর্যন্ত মোট ১৩৬ জন ক্রিকেটার নিশ্চিত হয়েছে। বিপিএলের এবারের আসরে দল বসাতে সবচেয়ে বেশি খরচ করেছে গত বছরের শিরোপা হারানো দল ফরচুন বরিশাল।

প্লেয়ার ড্রাফটে সব চেয়ে বেশি খরচ করেছে ফ্রাঞ্চাইজিটি। সব মিলিয়ে চার কোটি ৫০ লাখ টাকা খরচ করেছে ফরচুন বরিশাল। তবে শেষ পর্যন্ত অনিশ্চিত থাকা ঢাকা ফ্রাঞ্চাইজি খরচের তালিকায় আছে দুই নম্বরে। দলটি খরচ করেছে চার কোটি ৩০ লাখ টাকা।

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স প্লেয়ার ড্রাফটে খরচ করেছে চার কোটি ১৫ লাখ টাকা। তিন কোটি ৬৫ লাখ টাকা কুমিল্লা খরচ করেছে দেশীয় ক্রিকেটার পেছনেই। চতুর্থ অবস্থানে থাকা খুলনা টাইগার্স প্লেয়ার ড্রাফটে খরচ করেছে তিন কোটি ৮০ লাখ টাকা।





প্লেয়ার ড্রাফটে তিন কোটি ৭০ লাখ টাকা খরচ করেছে সিলেট স্ট্রাইকার্স। রংপুর রাইডার্স আজ খরচ করেছে তিন কোটি ১৫ লাখ টাকা। আর সবচেয়ে কম খরচ করেছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। তাদের খরচের পরিমাণ দুই কোটি ৭৫ লাখ টাকা। সরাসরি সাইনিংয়ে আসা ক্রিকেটারদের মূল্য জানা যায়নি। তাদের পেছনে খরচ হওয়া মূল্য এখানে যোগ করলে ক্রম তালিকায় পরিবর্তন আসতে পারে।