দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে হেরে লজ্জা রেকর্ড গড়লো বাংলাদেশ

দীর্ঘ ১৫ বছর পর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জয়ের দেখা পেয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ইতিহাস গড়ার পরের ম্যাচেই যেন মুখ থুবড়ে পড়েছে টাইগাররা। যেখানে আজ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ।





কিন্তু এই দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এই ম্যাচে নিজেদের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে বড় হারের স্বাদ পেয়েছে টিম টাইগার্স। আজ রাইলি রুশোর সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশকে ২০৫ রানের টার্গেট দেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। ব্যাটিংয়ে প্রথম ওভার ভালো করল এরপর থেকেই শুরু হয় ব্যাটিং ব্যর্থতা।

এমনকি ১১ জন মিলে রাইলি রুশোর ১০৯ রানই করতে পারেনি বাংলাদেশ। বাংলাদেশ দল মিলে করেছে ১০১ রান। এক রুশোর কাছেই বাংলাদেশ ৮ রানে হেরেছে।

বাংলাদেশ প্রথম টি-২০ খেলে ২০০৬ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। এ পর্যন্ত ১৪১ টি-২০ খেলা দলটির রানের ব্যবধানে এটাই সবচেয়ে বড় হার। এর আগে ২০০৮ সালে করাচিতে গিয়ে ১০২ রানে হেরেছিল বাংলাদেশ। সেবার পাকিস্তান তুলেছিল ২০৩ রান। এবার প্রোটিয়ারা দুই রান বেশি তুলেছে। বাংলাদেশের হারের ব্যবধানও দুই রান বেড়েছে।





বাংলাদেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ পরাজয় ৮৩ রানের। ২০১৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে গিয়ে বড় ওই ব্যবধানে হেরেছিল টিম টাইগার্স। সেবার প্রোটিয়ারা তুলেছিল ২২৪ রান। হাশিম আমলা ৮৫ ও ডেভিড মিলার ১০১ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। বাংলাদেশ করেছিল ১৪১ রান