সাকিবের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগ নিয়ে তদন্ত করছে দুদক

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেটের দলের সর্বকালের সেরা ক্রিকেটার হিসেবে ধরা হয় বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে। ক্রিকেট বিশ্বে তিনি একজন আইকন। যার সুবাদে নানা প্রতিষ্ঠানের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসাবে কাজ করেন সাকিব আল হাসান।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসাবে কাজ করা বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেটর দলের অধিনায়ক (টেস্ট ও টি-টেয়েন্টি) সাকিব আল হাসানের বিষয়ে যেকোনো সিদ্ধান্তের অপেক্ষা করতে বলেছেন সংস্থাটির সচিব মো. মাহবুব হোসেন।

ক্রিকেট মাঠের বাইরে ও নানা সংবাদের প্রধান শিরোনাম হয়ে থাকেন সাকিব আল হাসান। সম্প্রতি শেয়ার বাজারে তার প্রতিষ্ঠানকে নিয়ে অভিযোগ উঠেছে। তাই সাকিবের ব্যাপারে তদন্ত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দুদক সচিব।





মাহবুব হোসেন জানান, ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসাবে ২০১৮ সালে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে দুদকের যে চুক্তি হয়েছিল তা সম্পূর্ণ বিনা পারিশ্রমিকে। এছাড়া আমাদের হটলাইন-১০৬ উদ্বোধনকালেও তার সঙ্গে কাজ করা হয়। এরপর দীর্ঘদিন তার সঙ্গে কোনও কার্যক্রম হয়নি। সার্বিক যেটা আপনারা যেটা বললেন সে বিষয়টি প্রয়োজনে কমিশন দেখবে, সেজন্য অপেক্ষা করতে হবে।