৩০টি ‘ডাক’ মেরে চলতি বছরের ‘ডাক’ মারার রেকর্ড গড়েছে বাংলাদেশ।

এক ইনিংসে যদি ছয় ব্যাটসম্যানই ‘ডাক’ মারে তবে দলের স্কোর কতই বা হতে পারে? ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে প্রথম ইনিংসে রান-এর খাতায়ই খুলতে পারেনি বাংলাদেশের ছয় ব্যাটসম্যান। জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়েছে হাসির রোল।





অন্যদিনের মতো সেদিনও বরাবরই ব্যর্থ বাংলাদেশের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা। যে কারণে ২০২২ সালে সর্বোচ্চ ডাক মারার রেকর্ড গড়েছে বাংলাদেশ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অ্যান্টিগায় চলতি টেস্টের প্রথম ইনিংসে একসঙ্গে ছয় ব্যাটার শূন্য রানে আউট হওয়ায় ২০২২ সালে টেস্ট ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশিবার ডাক-এর দেখা পেল বাংলাদেশ দল।

এই দিন বাংলাদেশের হয়ে শূন্য রানে আউট হয়েছেন ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয়, নাজমুল হোসেন শান্ত মমিনুল হক, নুরুল হাসান সোহান মুস্তাফিজুর রহমান এবং খালেদ আহমেদ। চলতি বছর শূন্য রানে আউট হওয়ার রেকর্ডে বাংলাদেশ সবাইকে ছাড়িয়ে দৃষ্টিসীমার বাইরে।

৭ ম্যাচে ১১১ ইনিংসে বাংলাদেশের ডাক ৩০টি। সমান ম্যাচে ১২০ ইনিংসে ইংল্যান্ডের ডাক ১৩টি। এক ম্যাচ কম খেলে নিউ জিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার ডাক যথাক্রমে ১৪ ও ১২টি। এছাড়া শ্রীলঙ্কার ১২, ভারতের ৮, পাকিস্তানের ৭, অস্ট্রেলিয়ার ৬ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৩ ডাক রয়েছে। বিব্রতকর এমন রেকর্ডে সবার উপরে বাংলাদেশ, এমনটা চায়নি কেউই।





রয়েছে আরো একটি বিরল রেকর্ড। চলতি বছরে সবচেয়ে বেশিবার শূন্য রানে আউট তিন ব্যাটারও বাংলাদেশের। তারা যথাক্রমে খালেদ আহমেদ (৬ বার), মাহমুদুল হাসান জয় (৪ বার), মুমিনুল হক (৪ বার)। এই তিন জনের সবাই আজও অ্যান্টিগায় শূন্য রানে আউট হয়েছেন।