জাতীয় দলের অধিনায়ক হচ্ছেন অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া

চলতি আইপিএলে নিজের ক্যারিয়ার টাকে পরিবর্তন করে ফেললেন ভারতের বর্তমান সময়ের সেরা অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। চলতি পঞ্চদশ আইপিএলে দারুণ নেতৃত্ব দিয়ে নতুন দল গুজরাট টাইটান্সকে পয়েন্ট টেবিলের এক নম্বরে রেখেছেন হার্দিক পান্ডিয়া। যিনি কিছুদিন আগেই জাতীয় দল থেকে বাদ পড়েছিলেন।





সেই হার্দিকই আসন্ন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ঘরের মাঠে এবং আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভারতের নেতৃত্ব দিতে পারেন! ভারতীয় গণমাধ্যমে এমনই গুঞ্জন চলছে। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) শেষ হওয়ার পরে, ভারতকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে হবে।

এই সিরিজের জন্য কিছুদিনের মধ্যেই দল ঘোষণা করে দেবে বিসিসিআই। অনেক সিনিয়র খেলোয়াড়কে বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে। এই সিরিজে অধিনায়ক রোহিত শর্মা, সহ-অধিনায়ক কেএল রাহুল, বিরাট কোহলিকে বিশ্রাম দেওয়া হবে।

এমতাবস্থায় প্রশ্ন উঠেছে দলের দায়িত্ব কে নেবেন? সংবাদ সংস্থা পিটিআই-এর মতে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভারতকে নেতৃত্ব দিতে পারেন শিখর ধাওয়ান বা হার্দিক পান্ডিয়া। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই সিরিজে রোহিত শর্মা ছাড়াও কেএল রাহুল, বিরাট কোহলি, জাসপ্রিত বুমরাহ এবং ঋষভ পান্তকে বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে।

যিনি একটানা ক্রিকেট খেলছেন এবং এর পর ভারতকে ইংল্যান্ড সফর করতে হবে। তাই খেলোয়াড়দেরও বিশ্রাম দিতে হবে। ২২ মে টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য দল নির্বাচন করা হতে পারে, এই দিনে আইপিএলের লিগ ম্যাচগুলি শেষ হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে অধিনায়ক রোহিত শর্মাও ব্যস্ত থাকবেন। দল বেছে নেবেন নির্বাচকরা।





বিসিসিআইয়ের একটি সূত্র পিটিআইকে জানিয়েছে যে সমস্ত সিনিয়র খেলোয়াড়দের তিন-চার সপ্তাহের বিশ্রাম দেওয়া হবে যাতে তারা সরাসরি ইংল্যান্ড সফরে যোগ দেবেন। অধিনায়কত্বের ক্ষেত্রে নির্বাচকদের বিরুদ্ধে দুটি বড় পছন্দ রয়েছে, শিখর ধাওয়ান যিনি অতীতে কমান্ডে ছিলেন এবং হার্দিক পান্ডিয়া যিনি গুজরাত টাইটান্সের হয়ে অধিনায়কত্ব করছেন।