দর্শকদের জন্য বড় ধরনের দুঃসংবাদ আসতে পারে বিপিএল নিয়ে

বিপিএল শুরু হতে আর মাত্র ৯ দিন বাকি। বিপিএল আয়োজন করতে ইতিমধ্যেই সকল প্রস্তুতি শেষের দিকে। ইতিমধ্যেই অনুশীলনে নেমে পড়েছে কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজি। বিদেশি ক্রিকেটারদের তাড়াতাড়ি আনতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দলগুলি। তবে বিপিএল যত ঘনিয়ে আসছে ততই চিন্তার ভাঁজ বিসিবির কপালে।





বিশ্বব্যাপী আবারও মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে করোনাভাইরাস। ইতিমধ্যেই আবারো বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। আসছে বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) থেকে করোনা প্রতিরোধে সারা দেশে ১১ দফা বিধিনিষেধ কার্যকর করতে যাচ্ছে সরকার। আর এমন বিধিনিষেধের মধ্যে এতবড় লিগ আয়োজন নিয়ে এরই মধ্যে আলোচনা হচ্ছে।

যদিও এর আগে করোনা ভাইরাসের মধ্যে একাধিক টুর্নামেন্ট সফলতার সাথে আয়োজন করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তবে এই মুহুর্তে বিসিবির সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ মাঠে দর্শক প্রবেশের অনুমতি। ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজ দিয়ে আবারও মিরপুরে দর্শক প্রবেশের অনুমতি দিয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড চাচ্ছিল বিপিএলেও দর্শক ঢোকার অনুমতি দিতে। কিন্তু বাংলাদেশ সরকারের দেওয়া বিধিনিষেধের কারণে আবারো দর্শক প্রবেশের অনুমতি বন্ধ হতে যাচ্ছে। তবে এই ব্যাপারে সরকারের সাথে আলাপ-আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

সম্প্রতি গণমাধ্যমকে জালাল ইউনুস বলেন, “সরকারের সঙ্গে যে আলাপ-আলোচনা হয়েছিল সেখানে আমরা ৫০ ভাগ দর্শক প্রবেশের অনুমতি দেওয়ার চিন্তা-ভাবনা করেছিলাম। কিন্তু এখন যদি সরকার মনে করে যে, ওমিক্রন ছড়ানোর সম্ভাবনার কারণে আমাদের আরও নির্দেশনা মানতে তবে আমরা রাজি। আলাপ-আলোচনা চলছে, পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করচে সবকিছু, দেখা যাক আগামী কয়েকদিনে অবস্থা কি হয়।”





জালাল ইউনুসের মতে, “আইসিসির বিধিনিষেধ আছে। খেলার কোনো প্লেয়িং মেম্বার করোনা আক্রান্ত হলে তাকে আইসোলেট করে নেওয়া। যদি চারজন বা পাঁচজন এমনভাবে করোনা ছড়িয়ে যায় তবে আরেকটা প্রটোকল আছে। আমরাও সেই প্রটোকল ফলো করব।”