একাদশে সুযোগ পেলে বিধ্বংসী বোলিং করে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচ জেতাতে চান তাসকিন আহমেদ

গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় খবর ছিলেন তাসকিন আহমেদ। অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের দায়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন তাসকিন। সেই তাসকিন আবারও মাঠে ফিরেছেন। আগের থেকে আরও বেশি বিধ্বংসী হয়ে। তাইতো এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভালো কিছু করতে চান তাসকিন আহমেদ।





বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) মিরপুরে অনুশীলন শেষে সাংবাদিকদের তাসকিন জানান, “আলহামদুলিল্লাহ আমি অনেক খুশি যে বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পেয়েছি এবার। আমি খুব এক্সাইটেড যে খেলতে পারবো ইনশাআল্লাহ, আল্লাহ যদি নেয়।”

ঘরের মাঠে শেষ দুই টি-টোয়েন্টি সিরিজে দলের সঙ্গে ছিলেন এই তরুণ পেসার। তবে খেলা হয়েছে মাত্র একটি ম্যাচ। প্রস্তুতিতে একটু ঘাটতি থাকবে নাকি এমন প্রশ্নের জবাবে তাসকিন বলেন, “ওটিস গিবসন ও টিম ম্যানেজমেন্টের সাথে কাজ করছি। ওমানে গিয়েও ১০ দিন পাচ্ছি এবং প্র্যাকটিস ম্যাচও খেলতে পারব তিনটি। আশা করি প্রস্তুতির কোনও ঘাটতি থাকবে না।”

বিশ্বকাপের মতো মঞ্চে সব ক্রিকেটাররাই বাড়তি চাপে থাকে। বোলাররা উইকেট থেকে পাবেন না বাড়তি সুবিধা। স্পোর্টিং উইকেটে বোলারদের জন্য বল করাটাও চ্যালেঞ্জিং মনে করেন এই পেসার। এর আগে ওমান কিংবা দুবাইতে ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা নেই তাসকিনের।





“আমি খুবই রোমাঞ্চিত, কারণ ওমানে এর আগে আমার কখনো খেলা হয়নি। এমনকি দুবাইতেও যে ইভেন্ট গুলো হয়েছে আমি এখন পর্যন্ত ম্যাচ খেলিনি। ইনশাআল্লাহ আমার জন্য ওমান ও দুবাইতে খেলাটা একদম নতুন হবে যদি সুযোগ পাই। একই সময়ে আমি চাই ভালো কিছু উপহার দিয়ে ম্যাচ জেতানোর।”