সাকিব প্রমাণ করেছে দলের জন্য সে কতটা গুরুত্বপূর্ণ : অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ

নিষেধাজ্ঞা থেকে ফিরে অবশেষে আস্তে আস্তে জ্বলে উঠেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম দুই ম্যাচে অসাধারণ খেলেছেন সাকিব। গতকাল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ব্যাট হাতে ৩৪ রানের পর বল হাতেও ২৪ রানে তুলে দেন একটি উইকেট।





আজ দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচও ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছেন সাকিব আল হাসান। দলের গুরুত্বপূর্ণ সময় উইকেট তুলে নিয়েছেন তিনি। তৃতীয় উইকেটে মইসেস হেনরিকস এবং মিচেল মার্শের ৫২ বলে ৫৮ রানের জুটি চাপে ফেলেছিল বাংলাদেশকে। কিন্তু সেই চাপ থেকে উদ্ধার করেছেন সাকিব। ১৪তম ওভারে বোলিংয়ে এসে এই জুটি ভাঙেন সাকিব।

তাইতো ম্যাচ শেষে সাকিবের প্রশংসায় ভাসিয়েছেন অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তিনি বলেন, “সাকিব ব্যাটিং ও বোলিং দুই বিভাগেই অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। সে দেখিয়েছে দলে তার কতটা প্রয়োজন।’ এছাড়াও তিনি দলের জয়ে সবচেয়ে বেশি অবদান রাখা দুই ব্যাটসম্যান কাজী নুরুল হাসান সোহান এবং আফিফ হোসেনের প্রশংসা করেছেন।

আফিফ-সোহানের জুটি থেকে আসে অপরাজিত ৫৬ রান। ৩৭ রানে আফিফ ও ২২ রানে সোহান অপরাজিত ছিলেন। খাদের কিনারা থেকে দলকে দারুণ জয়ে এনে দেওয়ার আফিফের হাতে ওঠে ম্যাচ সেরার পুরস্কার।

“আফিফ ও সোহানকে এভাবে ব্যাট করতে দেখা অনেক স্বস্তির। দুইজনে আমাদের জয় পর্যন্ত নিয়ে গেছে। পরিপক্বতা দেখিয়েছে। দ্রুত কিছু উইকেট হারানোর পর ড্রেসিংরুমে দুশ্চিন্তা কাজ করছিল। কিন্তু আফিফ ও সোহান যেভাবে ব্যাট করেছে, তাতে দুশ্চিন্তা কমে গেছে।”





বোলারদের প্রশংসা করে মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘বোলাররা অনেক ভালো করেছে, যার কারণে তাদের ১২১ রানে আটকাতে পেরেছি। এমন কন্ডিশনে মোস্তাফিজ অনেক কার্যকরী এক বোলার। শরিফুলও ভালো করেছে, অন্য বোলাররাও অনেক হিসেবি ছিল। আমরা ম্যাচ বাই ম্যাচ এগোতে চাই।’