মুস্তাফিজুর রহমানের বিধ্বংসী বোলিংয়ে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে বাংলাদেশকে ১২২ রানের টার্গেট দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

বাংলাদেশের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১২১ রান সংগ্রহ করেছে অস্ট্রেলিয়া। টসে হেরে বোলিং করতে নেমে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর বিশ্বাসের মূল্য আজও রেখেছেন মাহেদি হাসান।





ইনিংসের শুরুতে বল করতে এসে দেন মাত্র ১ রান। পরের ওভারে হাত খুলতে যাওয়া অ্যালেক্স ক্যারিকে তুলে নেন মাহেদি। এর আগের ম্যাচেও ক্যারিকে আউট করেছিলেন টাইগার স্পিন অলরাউন্ডার। প্রথম ম্যাচে নাসুম ঘূর্ণিতে আড়ালে ছিলেন মুস্তাফিজ।

আজ ৬ষ্ঠ ওভারে এসেই মাত্র ৫ রান দিয়ে তুলে নেন জশ ফিলিপের উইকেট। ফিজের শর্ট লেন্থ বল না বুঝেই ব্যাট ঘুরিয়েছিলো জশ। ব্যাটে বলে না হওয়ায় সরাসরি লেগ স্টাম্পে আঘাত হানে বল। অজিরা হারায় তাদের দ্বিতীয় উইকেট। আর ফিফটি ছাড়ানো জুটি ভেঙে উইকেট তুলে নেন সাকিব।

সিরিজের প্রথম ম্যাচে অনেকটা একাই লড়েছিলেন মিচেল মার্শ। দ্বিতীয় ম্যাচেও মোয়েসস হেনরিকসকে নিয়ে গড়েছেন ৫৭ রানের জুটি। টাইগারদের জন্য ‘ভয়ংকর’ হয়ে ওঠা সেই জুটি ভাঙলেন টাইগারদের সেরা স্পিনার সাকিব আল হাসান। প্রথম ম্যাচের পরে দ্বিতীয় ম্যাচেও বোল্ড করলেন মোয়েসেস হেনরিকসকে।

অন্যদিকে এই ম্যাচেও হাফ সেঞ্চুরি বঞ্চিত হয়েছেন মিচেল মার্শ। ৪২ বলে ৪৫ রান করা এই ব্যাটসম্যানকে প্যাভিলিয়নে ফেরান শরিফুল ইসলাম। উইকেটকিপার নুরুল হাসান সোহানের হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি। তবে এর পরেই বল হাতে তাণ্ডব চালিয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান।

ইনিংসের ১৮ তম ওভারে তুলে নেন জোড়া উইকেট। অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক ম্যাথু ওয়েডের স্টাম্প উড়িয়ে দেন মুস্তাফিজ। পরের বলেই অ্যাস্টন অ্যাগারকে বোকা বানিয়ে হ্যাটট্রিকের সুযোগ তৈরি করেন মোস্তাফিজুর রহমান।

মোস্তাফিজের হ্যাটট্রিক না হলেও পরের ওভারে এসে অ্যাশটন টার্নারের উইকেট তুলে নেন শরিফুল ইসলাম। ৩ রান করে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি।

বাংলাদেশের হয়ে তিন ওভার বোলিং করে ১২ রানের বিনিময়ে একটি উইকেট নিয়েছেন মেহেদী হাসান। ৪ ওভারে ২২ রানের বিনিময়ে ১ উইকেট নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। ৪ ওভারের ১৭ রানের বিনিময়ে দুটি উইকেট নিয়েছেন শরিফুল ইসলাম এবং ৪ ওভারে ২৩ রানের বিনিময়ে তিনটি উইকেট নিয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান।

বাংলাদেশ একাদশ: মাহমুদউল্লাহ (অধিনায়ক), মোহাম্মদ নাইম শেখ, সাকিব আল হাসান, সৌম্য সরকার, আফিফ হোসেন, শামীম হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, মাহেদি হাসান, নাসুম আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম।





অস্ট্রেলিয়া একাদশ: ম্যাথু ওয়েড (অধিনায়ক), জশ ফিলিপ, অ্যাস্টন অ্যাগার, মইসেস হেনরিকস, মিচেল মার্শ, অ্যান্ড্রু টাই, জশ হ্যাজলউড, মিচেল স্টার্ক, অ্যাশটন টার্নার ও অ্যাডাম জাম্পা।