মুনিম শাহরিয়ার এবং নাজমুল হোসেন শান্ত দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের সপ্তম জয় তুলে নিল আবাহনী লিমিটেড

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের সপ্তম জয় তুলে নিয়েছে মুশফিকুর রহিমের দল আবহনি লিমিটেড। ‌আজ মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বৃষ্টির দিনে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব কে ৪৯ রানে হারিয়েছে আবাহনী লিমিটেড।





আবাহনীর ইনিংসের শেষ দিকে বৃষ্টি নামলে খেলা বন্ধ হয়ে, ১৮.২ ওভারে তাদের স্কোর ছিল ৪ উইকেটে ১৮১ রান। পরে বৃষ্টি আইনে শেখ জামালের সামনে টার্টেগ দাঁড়ায় ১৩ ওভারে ১৪৭ রান। ১৩ ওভারে ৮ উইকেটে হারিয়ে ৯৮ রান সংগ্রহ করে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব।

ঢাকা লিগে দারুণ সময় কাটছে আবাহনীর ওপেনার মুনিম শাহরিয়ারের। প্রাইম ব্যাংকের বিপক্ষে দুর্দান্ত ইনিংসের পর এবার শেখ জামালের বিপক্ষে খেললেন ঝড়ো ইনিংস। তার সঙ্গে মিরপুর শের-ই বাংলায় দ্যুতি ছড়িয়েছেন নাজমুল হোসে শান্ত।

ওপেনিংয়ে নেমে দ্রুত ফেরেন মোহাম্মদ নাঈম (১০)। তবে ঝড় তোলেন গতকাল ৮ রানের জন্য সেঞ্চুরি না পাওয়া মুনিম। তিনি ৪০ বলে ৯টি চার ও ৩টি ছয়ে খেলেন ৭৪ রানের ইনিংস। তিনে নেমে দুর্দান্ত খেলেন নাজমুল হোসেন শান্ত। দেখা পান চলতি আসরের প্রথম হাফসেঞ্চুরির।

শান্ত ৪২ বলে ৬৫ রান করে অপরাজিত আছেন। তার ইনিংসটি সাজানো ৬টি চার ও ২টি ছয়ে। তবে মুশফিক ফেরেন ০ রানে। ইনিংসের দ্বিতীয় বলে এবাদত হোসেন তাকে বাধ্য করেন উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিতে। শান্তর সঙ্গে ১৫ বলে ২৬ রান নিয়ে অপরাজিত আছেন মোসাদ্দেক হোসেনও। শেখ জামালের হয়ে ১টি করে উইকেট নিয়েছেন এবাদত, সালাউদ্দিন শাকিল, নাসির হোসেন ও জিয়াউর রহমান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। দলীয় ৫০ রানের মধ্যেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন ৬ জন ব্যাটসম্যান। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২৯ রান করে অপরাজিত থাকেন মোহাম্মদ এনামুল। এছাড়াও অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান ২২ জিয়াউর রহমান করেন ১১ রান।





ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে বরাবরই ব্যাট হাতে ব্যর্থ হচ্ছেন নাসির হোসেন এবং ইমরুল কায়েস। আজ ব্যাট হাতে ইমরুল কায়েস করেছেন ১৮ এবং নাসির হোসেন করেছেন ৬ রান। মেহেদি হাসান রানা তিনটি, আরাফাত সানী দুইটি, এবং মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, তানজিদ হাসান সাকিব ও আমিনুল ইসলাম একটি করে উইকেট।