সবার কাছে ক্ষমা চাইলেন সাকিব আল হাসান

বাংলাদেশ ঘরোয়া ক্রিকেট লীগে আম্পায়ারদের নিয়ে বিতর্ক নতুন কিছু নয়। এর আগেও বেশ কয়েকবার আম্পেয়ারদের সাথে বিতর্ক জড়িয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। কিন্তু আজ যে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে হয়েছে সেটি হয়তো আগের সবকিছুকে ছাড়িয়ে গিয়েছে। একবার নয় দুইবার আম্পিয়ারের উপরে তেড়ে গিয়েছেন সাকিব আল হাসান। আলসে জন্য সবার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি।





ইনিংসের পঞ্চম ওভারে বোলিং করতে আসেন সাকিব আল হাসান। ওই ওভারে একটি ছক্কা এবং একটি চার মারেন মুশফিকুর রহিম। ওভারের শেষ বলে মুশফিকুর রহিমের প্যাডে লাগলে এলবিডাব্লিউর আবেদন করেন সাকিব আল হাসান। সাকিবের আবেদন নাকচ করে দেন আম্পিয়ার। এলবিডব্লিউ আউট না দেওয়াই আম্পিয়ারের সামনে লাথি মেরে স্টাম ভাঙ্গেন সাকিব।

এর ঠিক পরের ওভারেই বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ করা হলে সাকিব এর প্রতিবাদ করতে এগিয়ে যান এবং তিনটি স্ট্যাম্পই তুলে আম্পায়ারের সামনে দিয়েছেন এক আছাড়! সে সময় আম্পায়ারকে শাসাতেও দেখা গেছে তাকে।

কিন্তু এখানেই শেষ নয়। এই দুই ঘটনার পর বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হলে মাঠ ছাড়ার সময় আবার তাকে দেখা যায় বিতর্কে জড়াতে। এবার আবাহনীর ড্রেসিং রুম থেকে তার দিকে শব্দবান আসতে থাকলে সাকিবও প্রত্যুত্তরে কিছু একটা বলেন। সাকিবের সেই কথা শুনে আবাহনী কোচ খালেদ মাহমুদকে দেখা যায় যুদ্ধংদেহী মনোভাবে তার দিকে তেড়ে যেতে। তেড়ে আসেন সাকিবও।

এমন উত্তপ্ত পরিস্থিতি সামলাতে মোহামেডানের ক্রিকেটারদের কয়েকজন গিয়ে থামান সাকিবকে। মাঠ ছাড়ার সময় মোহামেডানের শামসুর দৌড়ে আবাহনীর ড্রেসিং রুমের দিকে গিয়ে থামান খালেদ মাহমুদকেও।

সাকিবের এই কাণ্ডে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়েছে নানা আলোচনা এবং সমালোচনা। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ব্যাপারে ক্ষমা চেয়েছেন সাকিব আল হাসান। ভবিষ্যতে এমন কাণ্ড আর হবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাকিব-আল-হাসান লেখেন , “প্রিয়, আমি আমার মেজাজ হারানোর জন্য সবার কাছে ক্ষমা চাচ্ছি। আমি অত্যন্ত দুঃখিত যারা ঘরে বসে এই ম্যাচটি দেখছিলেন।আমার মতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড়ের উচিত ছিল না সেভাবে প্রতিক্রিয়া জানানো কিন্তু কখনও কখনও সমস্ত প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে এটি দুর্ভাগ্যজনকভাবে ঘটে”।





“এই মানবিক ত্রুটির জন্য আমি দল, পরিচালনা, টুর্নামেন্টের কর্মকর্তা এবং সাংগঠনিক কমিটির কাছে ক্ষমা চাই। আশা করি, ভবিষ্যতে আর এটিকে পুনরাবৃত্তি করব না। আপনাকে ধন্যবাদ এবং সবাইকে ভালবাসি ❤️ SAH”