বিশ্বকাপ সুপার লিগের সর্বোচ্চ রান সংগ্রহের তালিকায় সেরা দশের মধ্যে রয়েছেন তিনজন বাংলাদেশী ব্যাটসম্যান

বিশ্বকাপ সুপার লিগে শুরুটা ভালই করেছে বাংলাদেশ। প্রথম তিন সিরিজের মধ্যে পাঁচটি ম্যাচে জয়লাভ করেছে টাইগাররা। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঘরের মাঠে তিন ম্যাচ জয়ের পর নিউজিল্যান্ডে গিয়ে তিন ম্যাচ হেরে যায় বাংলাদেশে। তবে ঘরের মাঠে জয়ের ধারায় ফিরেছে টাইগাররা।

ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচে জয়লাভ করে এই মুহূর্তে বিশ্বকাপ সুপার লিগের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপ সুপার লিগের সর্বোচ্চ রান সংগ্রহের তালিকায় রয়েছেন বাংলাদেশের তিনজন ব্যাটসম্যান। সেরা দশের মধ্যে রয়েছেন মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবং অধিনায়ক তামিম ইকবাল। আসুন দেখে নেই বিশ্বকাপ সুপার লিগের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকা (সেরা দশ)

তালিকায় প্রথমেই রয়েছেন ইংল্যান্ডের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জনি বেয়ারস্টো। ৯ ইনিংসে ৫৫.৮৮ গড়ে তিনি করেছেন ৫০৩ রান। লীগে এখন পর্যন্ত ২ টি সেঞ্চুরি এবং তিনটি হাফ সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। সর্বোচ্চ স্কোর ১২৪ রান।

তালিকার দ্বিতীয় নম্বরে রয়েছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম। বিশ্বকাপ সুপার লিগের ৬ ইনিংসে ৮৯.৮০ গড়ে ৪৪৯ রান করেছেন তিনি। করেছেন দুইটি সেঞ্চুরি এবং দুটি হাফ সেঞ্চুরি। সর্বোচ্চ স্কোর ১২৫ রান।

তালিকার তৃতীয় নম্বরে রয়েছেন আয়ারল্যান্ডের ব্যাটসম্যান পল স্টার্লিং। লিগে এখন পর্যন্ত ৬ ম্যাচের মধ্যে সর্বোচ্চ তিনটি সেঞ্চুরি করেছেন তিনি।‌ ৬ ইনিংসে ৭৩.৫০ গড়ে ৪৪১ রান সংগ্রহ করেছেন তিনি। সর্বোচ্চ স্কোর ১৪২ রান।





তালিকার চতুর্থ নম্বরে রয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। লিগে এখন পর্যন্ত ৯ ইনিংসে ৫৮.১৪ গড়ে ৪০৭ রান সংগ্রহ করেছেন মুশফিকুর রহিম। করেছেন একটি সেঞ্চুরি এবং দুইটি হাফসেঞ্চুরি। মুশফিকুর রহিমের সর্বোচ্চ রান স্কোর ১২৫।

তালিকার পঞ্চম এবং ষষ্ঠ নম্বরে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার দুই ব্যাটসম্যান গ্লেন ম্যাক্সওয়েল এবং অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। দুজনই খেলেছেন ৬ টি করে ম্যাচ। এরমধ্যে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ৭০.৬০ গড়ে ৩৬৩ রান এবং অ্যারন ফিঞ্চ ৫৮.৩৩ গড়ে করেছেন ৩৫০ রান। দুইজনেরই রয়েছে একটি করে সেঞ্চুরি এবং তিনটি করে হাফ সেঞ্চুরি।

তালিকা সপ্তম নম্বরে রয়েছেন বাংলাদেশের আরেক ব্যাটসম্যান মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। প্রায় প্রতিটি ম্যাচেই বাংলাদেশের হয়ে হাল ধরেছেন তিনি। ৮ ইনিংসে ৬৮.০০ গড়ে ৩৪০ রান করেছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। করেছেন চারটি হাফ সেঞ্চুরি। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের সর্বোচ্চ স্কোর অপরাজিত ৭৬ রান।

মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের পরেই রয়েছেন আরেক ইংল্যান্ডের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান স্যাম বিলিংস। ৭ ইনিংসে ৬৬.০০ গড়ে তিনি করেছেন ৩৩৩ রান। তালিকায় তৃতীয় বাংলাদেশী হিসেবে রয়েছেন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ৯ ইনিংসে ৩৬.৮৮ গড়ে তামিম ইকবাল বলেছেন ৩৩২ রান।





লিগর এখন পর্যন্ত কোনো সেঞ্চুরির দেখা পাননি তামিম ইকবা। করেছেন চারটি হাফ সেঞ্চুরি। সর্বোচ্চ স্কোর ৭৮ রান। সেরা দশের মধ্যে শেষ ব্যাটসম্যান ভারতের অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। ৬ ইনিংসে ৬২ গড়ে ৩১০ রান সংগ্রহ করেছেন তিনি। করেছেন তিনটি হাফ সেঞ্চুরি।