ওয়ানডে র্র্যাংকিংয়ে ক্যারিয়ার সেরা রেটিং পয়েন্ট এর সামনে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশকে। বাংলাদেশ বনাম শ্রীলংকার সিরিজের ওয়ানডে র্র্যাংকিংয়ের হিসাব নিকাশ।

আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে শ্রীলংকার বিপক্ষে বাংলাদেশের তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে দুপুর দুইটা বেজে ত্রিশ মিনিটে। পরিসংখ্যানে বাংলাদেশ ক্রিকেট থেকে অনেক এগিয়ে রয়েছে শ্রীলঙ্কা। তবে বর্তমান পারফরম্যান্সে বিবেচনায় শ্রীলংকার থেকে অনেক এগিয়ে টাইগাররা।





১৯৮৬ সাল থেকে এখন পর্যন্ত শ্রীলংকার বিপক্ষে ৪৮ টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। যার মধ্যে বাংলাদেশ জয়লাভ করেছে ৭টি এবং শ্রীলংকা জয়লাভ করেছে ৩৯ টি। শ্রীলংকার বিপক্ষে বাংলাদেশের রেকর্ড তেমন একটি ভালো নয়। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এখনো পর্যন্ত ওয়ানডে সিরিজে জয়লাভ করতে পারেনি বাংলাদেশ।

সর্বপ্রথম ২০০২ সালে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ এবং শ্রীলংকা। এখন পর্যন্ত শ্রীলংকার বিপক্ষে আটটি দ্বিপাক্ষিক ওয়ানডে সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে দুটি সিরিজে ১-১ ড্র করেছে টাইগাররা।

বাংলাদেশ সর্বপ্রথম শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয় লাভ করে ২০০৫-০৬ মৌসুমে। কাগজে-কলমে এই মুহূর্তে শ্রীলঙ্কা থেকে অনেক এগিয়ে রয়েছে টাইগাররা। আইসিসি ওয়ানডে র্র্যাংকিংয়ে ৯০ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে অবস্থান করেছে বাংলাদেশ অন্যদিকে ৭৯ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে র্যাংকিংয়ে নবমস্থানে রয়েছে শ্রীলঙ্কা।

তবে এই সিরিজটি বাংলাদেশ দলের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। যদি শ্রীলংকার বিপক্ষে বাংলাদেশ এই সিরিজ হেরে যায় তাহলে র্র্যাংকিংয়ে সপ্তম স্থান থেকে অষ্টম স্থানে নেমে যাবে বাংলাদেশ। সপ্তম স্থানে উঠে যাবে শ্রীলঙ্কা। আসুন দেখে নেই বাংলাদেশ বনাম শ্রীলংকার মধ্যকার তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের র্র্যাংকিংয়ে হিসাব নিকাশ।

আইসিসি ওয়ানডে র্র্যাংকিংয়ে ৯০ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে অবস্থান করেছে বাংলাদেশ অন্যদিকে ৭৯ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে র্যাংকিংয়ে নবমস্থানে রয়েছে শ্রীলঙ্কা। এই সিরিজে যদি বাংলাদেশ ৩-০ ব্যবধানে জয়লাভ করে তাহলে চার রেটিং পয়েন্ট যোগ হবে বাংলাদেশের। অন্যদিকে ৫ রেটিং পয়েন্ট কমবে শ্রীলংকার।

বাংলাদেশ যদি ২-০ ব্যবধানে সিরিজ জয়লাভ করে তাহলে কোন রেটিং পয়েন্ট যোগ হবে না বাংলাদেশের। অন্যদিকে এক রেটিং পয়েন্ট হারাবে শ্রীলঙ্কা। তবে বাংলাদেশে যদি সিরিজ হেরে যায় তাহলে বিপদে রয়েছে টাইগারদের।





শ্রীলংকা যদি এই সিরিজের ২-০ ব্যবধানে জয়লাভ করে তাহলে ৩ রেটিং পয়েন্ট হারাবে বাংলাদেশ অন্যদিকে ৩ রেটিং পয়েন্ট যোগ হবে শ্রীলঙ্কার। তবে বাংলাদেশ যদি শ্রীলংকার বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ হারে তাহলে র্র্যাংকিংয়ে সপ্তম স্থান থেকে অষ্টম স্থানে নেমে আসবে বাংলাদেশে। ৮৬ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে উঠে যাবে শ্রীলঙ্কা। ৮৩ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে অষ্টম স্থানে নেমে যাবে বাংলাদেশ।