“এইবার কিন্তু কোন পিরিত হবে না” কড়া হুঁশিয়ারি দিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা

বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা বর্তমানে ব্যস্ত রয়েছেন তার নিজ এলাকার উন্নয়নের কাজে। গত সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-২ আসন থেকে নির্বাচিত হয়েছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। এরপরে নড়াইলে নানা উন্নয়নে অবদান রেখে চলেছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা।





ক্রিকেট মাঠে যেমন বাঘের গর্জনে কুপোকাত হয়েছে নানা তারকা ক্রিকেটারকে তেমনি রাজনীতির ময়দানে ও বাঘের গর্জন দিচ্ছেন তিনি। মাঝেমধ্যেই নিজ নির্বাচনী এলাকায় বিভিন্ন গ্রামে ঘুরে বেড়াচ্ছেন তিনি। গত মঙ্গলবার গিয়েছিলেন নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ইতনা ইউনিয়নের পাঙ্খার চর গ্রামে। সেখানে গিয়ে সাধারণ মানুষের উদ্দেশে বক্তব্য দিয়েছেন মাশরাফী।

যদিও সেটি আনুষ্ঠানিক কোন বক্তব্য ছিল না। তবে গ্রামের মানুষকে অপরাধে না জড়ানোর জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। এ সময় অন্যের কথা শুনে কোন অপরাধ না করার জন্য সবাইকে অনুরোধ করেছেন তিনি। মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, ঈদের নামাজ আপনারা ৩০টা রোজা রেখেও পড়তে পারেননি”।

“ঢাকায় বসে অমুক নেতা বলছে মাইরে দিয়ে আয়, আপনি মেইরে দিলেন! মাইরে দিয়ে এসে আপনার কী হলো, আপনি বুঝলেন না। সে কী আপনার মামলা লড়ে? কোনদিন লড়ছে? জেল যা খাটার তা তো আপনারাই খাটছেন, নাকি? খাটছেন না?

তারা আপনাদের কী দেয়? খাইতে দেয়? এই ধরেন আমার কথায় আপনারা এইগুলো করতেছেন, ধইরে নিলাম! আমি আপনাকে খাইতে দি? পরতে দি? ছেলেমেয়ের পড়াশোনা করাই? হাসপাতালে ভর্তি করাই? তাহলে আমি কিসের নেতা! আমার কথায় আপনি আরেকজনকে মেরে ফেলবেন! মারামারি করবেন তো খবর আছে। কেউ মারামারি করবেন না, এইবার কিন্তু কোন পিরিত হবে না!’





এছাড়াও তিনি বলেন, “এই এলাকায় আসলাম পুরো রাস্তাটাই ছিল খারাপ। এখন পর্যন্ত কারো মুখে শুনলাম না যে ভাই আমাদের এই রাস্তাটা ঠিক করে দেন। শুধু রাস্তার মাঝ পথে একজন মায়ের বয়সী মহিলা আমাকে অনুরোধ করলো বাবা আমাদের এই রাস্তাটা একটু ঠিক করে দেন।