সাকিব এবং মুস্তাফিজকে দ্রুতই মাঠে ফেরানোর জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে বিসিবি : আকরাম খান

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল)-এর খেলা শেষে গতকাল বিকালে দেশে ফিরছেন সাকিব আল হাসান এবং মুস্তাফিজুর রহমান। ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সীমান্ত ও বিমান যোগাযোগ বন্ধ থাকায় বিশেষ বিমানে করে দেশে ফিরেন সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান।





বাংলাদেশ সরকার আগেই নিয়ম করেছে, ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকাফেরত যে কাউকেই বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন পালন করতে হবে। ১ মে থেকে এই নিয়ম কার্যকর করা হয়েছে। সে হিসেবে বিমান বন্দর থেকেই কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে চলে যেতে হয়েছে সাকিব আল হাসান এবং মোস্তাফিজুর রহমানকে।

বিসিবি সূত্রে জানা গেছে, বিলাশবহুল হোটেলেই দুই ক্রিকেটারের কোয়ারেন্টাইন করার ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সাকিব আল হাসানকে রাখা হচ্ছে গুলশানস্থ বিলাশবহুল হোটেল ফোর পয়েন্টস বাই শেরাটনে। মোস্তাফিজুর রহমান তার স্ত্রীসহ কোয়ারেন্টাইন করবেন সোনারগাঁও হোটেলে।

বিমানবন্দর থেকে এই দুই ক্রিকেটারকে সরাসরি পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে ওই দুই হোটেলে। এদিকে আসন্ন শ্রীলংকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের বাংলাদেশ দলে রয়েছেন সাকিব আল হাসান এবং মুস্তাফিজুর রহমান। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ২৩ মে শুরু হবে দুই দলের মধ্যকার প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ।

অন্যদিকে সাকিব এবং মুস্তাফিজুর কোয়ারেন্টাইন শেষ হবে ২০ মে। সিরিজ শুরু হওয়া ঠিক তিন দিন আগে। তাই তাদেরকে আরো কিছুদিন আগে পাওয়ার জন্য আগামীকাল সবাই বসবেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান। দেশের একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আকরাম খান বলেন

“তারা মাত্র দেশে ফিরেছে। আমরা এ বিষয়ে এখনো সবাই মিলে বসতে পারিনি। আমার একক সিদ্ধান্তে কিছু হবে না। আমরা শনিবার বোর্ডে বসবো। দুজনকে দ্রুত ফেরানোর জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা হবে। আমরা শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পুরো শক্তি নিয়েই নামতে চাই।’





আইপিএলের এবারের আসরের কলকাতা নাইট রাইডার্স এর হয়ে খেলেছেন সাকিব আল হাসান এবং রাজস্থান রয়েলসের হয়ে খেলেছেন মোস্তাফিজুর রহমান। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ১৬ মে বাংলাদেশে আসছে শ্রীলঙ্কা জাতীয় ক্রিকেট দল। দুই দলের মধ্যকার প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ শুরু হবে ২৩ মে।