ডাবল সেঞ্চুরি করতে পারলেন না শান্ত। ১৬৩ রানে আউট হলেন তিনি

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্ট ম্যাচের দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনেই সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের অধিনায়ক মমিনুল হক। গতকাল প্রথম দিনে অধিনায়ক মমিনুল হক ৬৪ এবং নাজমুল হোসেন শান্ত ১২৬ রান নিয়ে আজ দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করে এই দুই ব্যাটসম্যান।

২২৯ বলে নয়টি চারের সাহায্যে ক্যারিয়ারের ১১ তম সেঞ্চুরি করলেন মোমিনুল হক। মমিনুল হকের সেঞ্চুরিতে পরেই দেড়শো রান তুলে নিয়েছেন আরেক টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত। ৩৬৩ বলে ১৬ টিচার এবং একটি ছক্কায় সাহায্যে ১৫০ রান করেন তিনি। তবে এই দিন ডাবল সেঞ্চুরি বঞ্চিত হয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। দলীয় ৩৯৪ রানের মাথায় ১৬৩ রান করে লাহিরু কুমারারং বলে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন তিনি।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৩ উইকেটে ৩৯৪ সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ।





এর আগে গতকাল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথমটিতে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মমিনুল হক। টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন ওপেনার ব্যাটসম্যান সাইফ হাসান। ০ রানেই ফার্নান্দোর বলে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি।

তবে এর পরে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। আরেক টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান নাজমুল হাসান শান্তকে সাথে নিয়ে প্রথম সেশন শেষ করেন তামিম ইকবাল। ৫২ বলে দশটি চারের সাহায্যে ক্যারিয়ারের ২৯ তম হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন তামিম ইকবাল।

লাঞ্চ ব্রেক থেকে ফিরেই হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত। ১২০ বলে ৭ টিচার এর সাহায্যে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় হাফ সেঞ্চুরি করেন তিনি। তবে সেঞ্চুরি খুব কাছে গিয়েও সেটি করতে পারেননি তামিম ইকবাল।

১০১ বলে ১৫ টিচারের সাহায্যে ৯০ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তামিম ইকবাল। তবে তামিম না পারলেও সেটি করে দেখালেন নাজমুল হোসেন শান্ত। অধিনায়ক মমিনুল হককে সাথে নিয়ে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন বাংলাদেশের এই তরুণ টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান।

২৩৬ বলে ১২ টিচার এবং একটি ছক্কার সাহায্যে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করেন শান্ত। নাজমুল হোসেন শান্ত সেঞ্চুরির পর অন্য প্রান্ত থেকে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন অধিনায়ক মমিনুল হক। ১১৭ বল মোকাবেলা করে পাঁচটি চারের সাহায্যে এই হাফ সেঞ্চুরি করেন তিনি।

তৃতীয় সেশনে আর কোন উইকেট হারায়নি টাইগাররা। নাজমুল হোসেন শান্ত এবং মমিনুল হক মিলে তৃতীয় উইকেট পার্টনারশিপের যোগ করেন ১৫০ রান। অধিনায়ক মমিনুল হক ৬৪ এবং নাজমুল হোসেন শান্ত ১২৬ রান করে অপরাজিত থেকে প্রথম দিনের খেলা শেষ করেন।

বাংলাদেশ একাদশ : তামিম ইকবাল, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস (উইকেট কিপার), মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, আবু জায়েদ, এবাদত হোসেন।





শ্রীলঙ্কা একাদশ : দিমুথ করুণারত্নে (অধিনায়ক), লাহিরু থিরিমান্নে, ওশাদা ফার্নান্দো, পাথুম নিসঙ্কা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ, নঞ্জায়া ডি সিলভা, নিরোশন ডিকভেলা (উইকেট কিপার), ওয়ানিন্দু হাসরঙ্গা, সুরঙ্গা লাকমল, লাহিরু কুমারা, বিশ্ব ফার্নান্দো।