ডেভিড মিলার, কাগিসো রাবাদা, ডি ককের মত সিরিজের মাঝপথে আইপিএলে গেলে কি হতো সাকিব-মোস্তাফিজের : মাশরাফি

পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে ম্যাচে মাঠে নেমেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথম দুই ম্যাচে ১-১ সমতা হওয়ায় শেষ ম্যাচটিকে অলিখিত ফাইনাল বলা যায়। তবে গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচটা খেলছেন না দক্ষিণ আফ্রিকায় বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার।





এই ম্যাচ না খেলে জাতীয় দল ত্যাগ করেছেন পাঁচ প্রোটিয়া ক্রিকেটার। যা দেখে মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা বাংলাদেশের সঙ্গে তুলনা করেছেন। আইপিএলে খেলতে ক্রিকেট বোর্ডের কাজ থেকে অনেক আগে থেকেই কাগিসো রাবাদা, কুইন্টন ডি কক, লুঙ্গি এনগিডি, ডেভিড মিলার ও আনরিক নরকিয়া ছুটি নিয়েছেন।

অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ না খেলে এবারের আইপিএল খেলতে চিঠি দিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড় সাকিব আল হাসানকে।

শেষ পর্যন্ত অবশ্য সাকিবের ছুটি মঞ্জুর করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। পাশাপাশি আইপিএল খেলতে আরেক টাইগার তারকা মুস্তাফিজুর রহমানকেও অনাপত্তি সনদ (এনওসি) দেয়া হয়।

সম্প্রতি গণমাধ্যমে ক্রিকেট বোর্ডের সমালোচনা করে সমালোচনা করতে দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফীকে। দক্ষিণ আফ্রিকা ও বাংলাদেশ দলের আইপিএল খেলতে যাওয়ার প্রসঙ্গটি এক করে ফেসবুকে একটি পোস্ট করেছেন লাল-সবুজদের সবচেয়ে সফলতম অধিনায়ক।

তিনি লিখেছেন, ‘ডেভিড মিলার, কাগিসো রাবাদা, আনরিক নরকিয়া, লুঙ্গি, এনডিগি, ডি কক সবাই ফর্মে আছে এবং প্রথম দুই ম্যাচেই ভালো পারর্ফম করছে। আজ দেখছি সিরিজ ডিসাইড ম্যাচে তারা নেই। কারণ বুঝলাম কোয়ারেন্টিন পুরোন করতে হবে আইপিএলের জন্য। ম্যাচের ৩০ ভাগ শেষ কিন্তু কোনও আওয়াজ নাই কমেন্ট্রিতে বা অন্য কোথাও।’





দেশের ক্রিকেটের সংস্কৃতি মনে করিয়ে দিয়ে মাশরাফী বলেন, ‘কল্পনায় আনতে পারছিনা, এরকম অবস্থায় আমাদের কেউ গেলে কী হতে পারতো। সাকিব আল হাসান, মুস্তাফিজুর রহমান আল্লাহ তোদের সহায় হোন…।’