নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে বাংলাদেশের লজ্জাজনক হার। ৭৬ রানে অলআউট হয়ে টি-টোয়েন্টিতেও হোয়াইটওয়াশ হয়েছে টাইগাররা।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে একদম বাজে ভাবে হেরেছে বাংলাদেশ। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ১০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৪১ সংগ্রহ করেছে নিউজিল্যান্ড। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৯.৩ ওভারে মাত্র ৭৬ রানে অলআউট হয়েছে বাংলাদেশ। এই জয়ের ফলে ওয়ানডে সিরিজের পর টি-টোয়েন্টি সিরিজেও হোয়াইটওয়াশ বাংলাদেশ।





বৃহস্পতিবার অকল্যান্ডের ইডেন পার্কে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচ। বৃষ্টির কারণে ম্যাচটি কমিয়ে ১০ ওভারে আনা হয়েছে।

ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২ টায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বৃষ্টির কারণে তা শুরু হয় ২টা ১০ মিনিটে। টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ড ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই চালিয়ে খেলতে থাকে। একের পর এক চার-ছক্কায় বড় স্কোরের দিকে এগোতে থাকে তারা।

ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে দলীয় ৮৫ রানে মার্টিন গাপটিল আফিফ হোসেনের হাতে ক্যাচ হয়ে ফিরে যান। এক্ষেত্রে বোলার ছিলেন শেখ মেহেদী হাসান। ১৯ বলে ১টি চার ও পাঁচটি ছক্কার সাহায্যে ৪৪ রান করেন তিনি।

দলীয় ১২৩ রানে গ্লেন ফিলিপস ক্যাচ হন সৌম্য সরকারের হাতে। ৬ বলে ১৪ রান করেন তিনি। দশম ওভারে তাসকিনের বলে স্কুপ করতে গিয়ে মিরাজের হাতে ক্যাচ হন ফিন অ্যালেন।

১৮ বলে ব্যক্তিগত অর্ধশত পূরণ করা অ্যালেন শেষ পর্যন্ত ২৯ বলে ৭১ রান করে আউট হন। তার ইনিংসে রয়েছে ১০টি চার ও তিনটি ছক্কার মার। ইনিংসের শেষ বলে রান আউট হন ড্যারিল মিচেল।





এই ম্যাচে একজন বোলারের জন্য বরাদ্দ সর্বোচ্চ ২ ওভার। পেসার রুবেল হোসেন ২ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি। শেখ মেহেদী হাসান ২ ওভারে ৩৪ রান দিয়ে নিয়েছেন ১টি উইকেট।

নাসুম আহমেদ ২ ওভারে ২৯ রান দিয়ে উইকেটশূন্য থাকেন। ২ ওভারে ২৪ রান দিয়ে ১টি উইকেট নেন তাসকিন আহমেদ। ২ ওভারে ২১ রান দিয়ে ১টি উইকেট নেন শরিফুল ইসলাম।

১৪২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে বাংলাদেশ। ইনিংসের প্রথম ওভারেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন সৌম্য সরকার এবং লিটন দাস। ৪ বলে ১০ রান করেন সৌম্য এবং শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন অধিনায়ক লিটন।

দুটি উইকেট তুলে নেন টিম সাউদি। বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ রান ১৯ করেন ওপেনার ব্যাটসম্যান মোঃ নাঈম শেখ। এছাড়া মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ১৩, নাজমুল হোসেন শান্ত এবং আফিফ হোসেন দুজনেই করেন ৮ রান করে। ১৩ রানে টড অ্যাসলে একাই নেন ৪ টি উইকেট।

বাংলাদেশ একাদশ : নাজমুল হোসেন শান্ত, নাইম শেখ, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, আফিফ হোসেন, শেখ মেহেদী হাসান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, রুবেল হোসেন ও নাসুম আহমেদ।





নিউজিল্যান্ড একাদশ : মার্টিন গাপটিল, ফিন অ্যালেন, ডেভন কনওয়ে, উইল ইয়ং, গ্লেন ফিলিপস, মার্ক চ্যাপম্যান, ড্যারিল মিচেল, টিম সাউদি, অ্যাডাম মিলনে, টড অ্যাসলে ও লকি ফার্গুসন।