সৌম্য সরকারের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের পরেও দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচেও হতাশার বাংলাদেশের।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচেও পরাজয়ের মুখ দেখেছে বাংলাদেশ। বৃষ্টিবিঘ্নিত এই ম্যাচে ১৭০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ১৬ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪২ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ।

ম্যাচের শুরুতেই টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোই করে দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান মার্টিন গাপটিল এবং ফিন অ্যালেন। দুজনের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন তাসকিন আহমেদ।

দলীয় ৩৬ রানের মাথায় ১৭ রান করা ফিন অ্যালেনকে প্যাভিলিয়নে ফেরান তাসকিন। এরপর ২১ রান করা মার্টিন গাপটিলকে আউট করেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। ব্যক্তিগত দ্বিতীয় ওভারে এসেই টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ক্যারিয়ারের প্রথম উইকেট তুলে নেন শরিফুল ইসলাম। ১৫ রান করা ডেভন কনওয়েকে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি।

এরপরই শুরু হয় বৃষ্টি। দুই দফায় বৃষ্টি হানা দেওয়ায় নিউজিল্যান্ডের ইনিংস শেষ ঘোষণা করেন মাঠের আম্পায়াররা। যেখানে বৃষ্টির কারণে ১৭.২ ওভারে দ্বিতীয়বার খেলা বন্ধ হয়।

এসময় ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭৩ রান করে নিউজিল্যান্ড। তবে ডি/এল মেথডে বাংলাদেশের সামনে প্রথমে ১৬ ওভারে লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৭০। ১৭০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই লিটন দাসের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। হামিশ বেনেটের বলে ব্যক্তিগত ৬ রানে বিদায় নেন লিটন দাস।

তবে আজ ব্যাটিং তান্ডব চালিয়েছে সৌম্য সরকার। ২৫ বলে পাঁচটি চার এবং তিনটি ছক্কার সাহায্যে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন সৌম্য সরকার। তবে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেওয়ার পর ৫১ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন সৌম্য সরকার। এরপর ৩৮ রানের নাঈম শেখ আউট হলে জয়ের স্বপ্ন শেষ হয়ে যায় বাংলাদেশের। শেষের দিকে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ২১, আফিফ হোসেন ২ এবং মোহাম্মদ মিঠুন ১ রান করেন।

বাংলাদেশের একাদশ: লিটন দাশ (উইকেটরক্ষক), মোহাম্মদ নাঈম, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), আফিফ হোসেন, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মেহেদী হাসান, নাসুম আহমেদ, তাসকিন আহমেদ এবং শরিফুল ইসলাম





নিউজিল্যান্ডের একাদশ: মার্টিন গাপটিল, ফিন অ্যালেন, ডেভন কনওয়ে (উইকেটরক্ষক), উইল ইয়ং, গ্লেন ফিলিপস, মার্ক চাপম্যান, ড্যারিল মিচেল, টিম সাউদি (অধিনায়ক), ইশ সোধি, হামিশ বেনেট ও লোকি ফার্গুসন।