অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে সাকিবের আইপিএলের খেলা। সাকিবের আইপিএল খেলার অনাপত্তি পত্র পর্যালোচনা করবে বিসিবি

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্স-এর হয়ে দল পেয়েছেন সাকিব আল হাসান। যার কারণে আগামী এপ্রিলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ থেকে বিসিবির কাছ থেকে ছুটি চেয়েছেন তিনি। কিন্তু গতকাল দেশের একটি ক্রিকেট ভিত্তিক ওয়েবসাইটের ফেসবুক লাইভে এসে বিসিবির সমালোচনা করেন তিনি।





সারাদিন এই নিয়ে চলে নানা আলোচনা-সমালোচনা। শেষ পর্যন্ত বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন-এর গুলশানে নিজের বাসভবনে বিসিবির কয়েকজন পরিচালকদের সাথে বৈঠকে বসেন।

সেখানে সাকিব আল হাসানের এই বক্তব্য নিয়ে নানা আলোচনা হয়েছে। বৈঠক শেষে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান জানিয়েছেন, সাকিব টেস্ট খেলার আগ্রহ প্রকাশ করায় নতুন করে আইপিএলে তাকে এনওসি দেওয়ার ভাবে তারা।

তিনি বলেন, ”অনেক কথার মধ্যে একটা কথা শুনেছি যে, ও চিঠি দিয়েছে এবং আমি নাকি চিঠি পড়িনি। এটা নিয়ে আজকে আপনারা (সাংবাদিক) ফোন করেছেন। তো ঠিক আছে, আমি হয়তো ভুল বুঝতে পারি চিঠিটা”।

“ও টেস্ট খেলতে চাচ্ছে এটা বলেছে, তো আমি কাল-পরশু বোর্ডের সাথে আলাপ-আলোচনা করে এনওসি (নো অবজেকশন সার্টিফিকেট) নিয়ে আমরা চিন্তা করব। ওর যদি ইন্টারেস্ট থাকে তাহলে ও টেস্ট খেলবে, যাবে শ্রীলঙ্কায় টেস্ট খেলতে।’

আগামী এপ্রিলের শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ১২ এপ্রিল শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য ঢাকা ত্যাগ করবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। একই সময়ে অনুষ্ঠিত হবে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএল এর এবারের আসর।

এবারের আইপিএলে দল পাওয়ার কারণে অনেক আগে থেকেই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাছ থেকে অনাপত্তিপত্র নিয়েছিলেন সাকিব। কিন্তু এখন নতুন করে অনাপত্তি পত্র দেওয়াল ব্যাপারে আলাপ-আলোচনা পড়বে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।





এসময় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান আরো বলেন, “আমরা তো শ্রীলঙ্কায় যাচ্ছি দুইটা টেস্ট খেলতে। সেখানে ওয়ানডেও নেই, টি-টোয়েন্টিও নেই। চিঠিতে তো সেখানেই ছুটি চেয়েছে। তো সেটাই এখন আমরা বলছি ও যদি টেস্ট খেলতে চায় তাহলে খেলবে। আমরা ওর এনওসি নিয়ে চিন্তা করব। আর বাকিটা আমরা পুরো (সাকিবের ইন্টারভিউ) দেখি, তারপর আলাপ-আলোচনা করব।’